1. admin@ajkallondon.com : Ajkal London : Ajkal London
  2. ajkallondon@gmail.com : Dev : Dev
পুলিশের সেবা আইনশৃঙ্খলায় সীমাবদ্ধ নয় : ডিএমপি কমিশনার - Ajkal London
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:৫২ অপরাহ্ন

পুলিশের সেবা আইনশৃঙ্খলায় সীমাবদ্ধ নয় : ডিএমপি কমিশনার

রিপোর্টার নাম
  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৫৫ বার ভিউ

নজরুল ইসলাম,ঢাকা থেকে: ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার (ডিএমপি) মো. হাবিবুর রহমান বলেছেন, আমি গর্বের সঙ্গে বলতে চাই যে বাংলাদেশ পুলিশের সেবা কেবল আইনশৃঙ্খলার ভেতরেই সীমাবদ্ধ নয়, সেটি তারা জাতিকে দেখিয়েছে। সবার আগে দেখিয়েছে ১৯৭১-এর ২৫ মার্চ রাতে। জাতীয়তার পরীক্ষায় বাংলাদেশ পুলিশ সবার আগে পরীক্ষা দিয়ে ভালো রেজাল্ট করেছিল।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশ এখন বিভিন্ন সামাজিক দায়িত্ব পালন করে থাকে। দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ চলছে, পুলিশ শ্রমজীবী মানুষ ও পথচারীদের কথা বিবেচনা করে ডিএমপির ৫০টি থানা এলাকায় বিভিন্ন পয়েন্টে স্থায়ী/অস্থায়ীভাবে সুপেয় খাবার পানির ব্যবস্থা করেছে। সেই সঙ্গে স্যালাইন দেওয়া হচ্ছে। কিছু কিছু জায়গায় ওষুধও দেওয়া হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) রাজারবাগ পুলিশ অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ পুলিশ থিয়েটার অ্যান্ড কালচারাল ক্লাব আয়োজিত বার্ষিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০২৪-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হাবিবুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশের প্রায় দুই লাখ সদস্য আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি দিবা রাত্রি ২৪ ঘন্টা নাগরিক জীবনে সর্বত্র দায়িত্ব পালন করে চলেছে।’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে পুলিশ চেয়েছিলেন, আজকের বাংলাদেশের পুলিশ সেই অবস্থানে রয়েছে দাবি করে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘বিভিন্ন সময় আমরা দেখেছি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বড় বড় সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে। সেটি ২০১৩ সালের ৫ মে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ সেদিন পরিস্থিতি কতটা দক্ষতার সাথে মোকাবিলা করেছিল দেশবাসী তা জানে। এরপর করোনাকালে বিশ্বব্যাপী যে অতিমারির সৃষ্টি হয়েছিল সেটিও মোকাবিলা করতে হয়েছে পুলিশকে। বাবা-মা সন্তানের লাশ ফেলে চলে গেছে। সেই দায়িত্ব নিয়েছিল পুলিশ। বাড়ি বাড়ি খাবার দিয়েছে পুলিশ। হাসপাতালে নিয়ে গেছে পুলিশ।’

তিনি বলেন, ‘প্রখর রোদের ভেতর ঢাকা শহরের ট্রাফিক পুলিশ কীভাবে কাজ করে তা আমরা সবাই জানি। মানুষের কথা চিন্তা করে শুধু গরম না আরও যদি কোনো দুর্যোগ বিপর্যয় আসে পুলিশ বসে থাকতে পারে না। পুলিশ তার দায়িত্ব পালন করে।’

হাবিবুর রহমান বলেন, ‘পুলিশ জীবন বাঁচাতে প্রয়োজন হয়। ঠিক তেমনি জীবন সাজাতে সংস্কৃতির প্রয়োজন হয়। জীবন বাঁচাতে এবং সাজাতে সবক্ষেত্রেই পুলিশের সতর্ক অবদান। সেই প্রতিজ্ঞা নিয়েই পুলিশের মাঝে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা।’

এবারই প্রথম আনুষ্ঠানিক ভাবে বাংলাদেশ পুলিশ বার্ষিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০২৪-এর আয়োজন করছে জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘আজকে যে এ প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে সেটি ১৯৮৬ সাল থেকে শুরু হলেও জাতীয় ভিত্তিতে এবারই প্রথম করছি। পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল আবদুল্লাহ আল-মামুন স্যারের পৃষ্ঠপোষকতায় আমরা এটি শুরু করছি। এ অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে এসেছেন তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছি। আজকের এ প্রতিযোগিতায় যারা অংশগ্রহণ করবেন তাদের আমি আগাম অভিনন্দন জানাই।’

বক্তব্য শেষে প্রদীপ জ্বালিয়ে তিন দিনব্যাপী পুলিশ বার্ষিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০২৪-এর উদ্বোধন করেন ডিএমপি কমিশনার মো. হাবিবুর রহমান।

Google News

নিউজ শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর